১ম জেলা প্রশাসক কাপ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট: সাতক্ষীরা সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন, রনি ম্যান অব দ্য সিরিজ

রাইয়ান সাকিল: ১ম জেলা প্রশাসক কাপ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে সাতক্ষীরা পৌরসভাকে ৬ উইকেটে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা দল।
বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ মাঠে জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে সাতক্ষীরা পৌরসভার ব্যাটসম্যানরা। চার ছক্কায় প্রতিপক্ষকে চাপে রাখে দলটি। অপরদিকে চাপ সামলে ব্যাটসম্যানদের আউট করতে থাকেন সদর উপজেলা দলের শামিম ও আশিক। এদিকে স্কোর বোর্ডে ঝড়ো গতিতে রান জমা করতে থাকেন রনি তালুকদার। তবে ভয়ংকর হয়ে ওঠা রনিকে ফেরেন টুটুল। এরপর আর কোন ব্যাটসম্যান উইকেটে দাঁড়াতে পারেন নি। ফলে ১৯.৪ ওভারে ১৪৭ রানে গুটিয়ে যায় সাতক্ষীরা পৌরসভা দল। সাতক্ষীরা পৌরসভার হয়ে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন রনি তালুকদার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ রান করেন সোহেল। অপরদিকে, পৌরসভার ব্যাটিং লাইন আপে একাই ধস নামান শামিম। সাতক্ষীরা সদরের হয়ে মাত্র ৭ রান দিয়ে ৪টি উইকেট শিকার করেন তিনি। এছাড়া ২৩ রান দিয়ে ২টি উইকেট নিয়েছেন আশিক।
১৪৮ রানের টর্গেটে ক্রিজে ওপেন করতে নামেন রনি ও শামিম। দারুন শুরু করে সদর উপজেলার উদ্বোধনী জুটি। এই জুটি থেকে আসে ৮৩ রান। ব্যক্তিগত ৩৮ রানে তাপসের বলে আউট হয়ে ফিরে যান ওপেনার শামিম। শামিমের পর উইকেট নামেন মইনুল। কিšুÍ দলের আরেক ওপেনার রনির সাথে যোগ্য সঙ্গ দিতে ব্যর্থ হন তিনি। সেই তাপসের দ্বিতীয় শিকার হন তিনি। এরপর ক্রিজে নামেন অধিনায়ক তারেক। উইকেটে এসে সতর্কতার সাথে শুরু করেন এই ব্যাটসম্যান। দুইটি ছয়ে ব্যক্তিগত ২৭ রানে তাপসের বলে বোল্ড আউট হয়ে ফেরেন অধিনায়ক। অধিনায়কের পর খুব দ্রুত আউট হন এনামুলও। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন রনি। এরপর আর কোন বিপদের সম্মুখীন হয়নি দলটি। উইকেটে থাকা টুটুলকে নিয়ে ১৭.১ ওভারে ৪টি উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলা। এরই সাথে প্রথম জেলা প্রশাসক কাপ টি-টুয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে তারা।

 

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রনি। বোলিংয়ের পর ব্যাটেও আলো ছড়ান শামীম। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৮ রান আসে তার ব্যাট থেকে। এছাড়া তারেক করেন ২৭ রান। সাতক্ষীরা পৌরসভার বোলারদের মধ্যে ২৯ রান দিয়ে ৩টি উইকেট লাভ করেন তাপস।
খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন সাতক্ষীরা সদর উপজেলার শামীম। গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচে ব্যাট হাতে তিনি ৩৮ রান ও ৪টি উইকেট লাভ করেন। আম্পায়ার ছিলেন মোখলুক-উ-দ্দোজা শ্যাম্পু ও আসিফ কবির হিরন। স্কোরার দারুজ্জামান রুবেল।
অপরদিকে, ম্যান অব দ্য সিরিজ হন একই দলের খেলোয়াড় রনি। টুর্নামেন্টে কালিগঞ্জের বিপক্ষে ৩১ বলে ৬৫ রান, কলারোয়ার বিপক্ষে ২১ বলে ২৩ রান ও ফাইনালে সাতক্ষীরা পৌরসভার বিপক্ষে ৪২ বলে ৬৭ রান করেন এই ব্যাটসম্যান। টুর্নামেন্টে চার ছক্কায় দর্শকদের আনন্দে ভরিয়ে মোট ১৫৫ রান আসে তার ব্যাট থেকে।
ফাইনাল খেলা শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের হাতে ট্রফি তুলে দেন সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার ইলতুৎ মিশ, জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার সভানেত্রী ও জেলা প্রশাসক পত্নী লাভলী কামাল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আশরাফুজ্জামান আশু ও সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম আনিছুর রহমান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আম্পায়ার্স অ্যান্ড স্কোরার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও সংস্থার নির্বাহী সদস্য আ.ম আখতারুজ্জামান মুকুল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্ম সম্পাদক শেখ আব্দুল কাদের, নির্বাহী সদস্য কাজী কামরুজ্জামান, ইদ্রিস বাবু, ইকবল কবির খান বাপ্পি, হাফিজুর রহমান খান বিটু, মীর তাজুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

Please follow and like us:
error0
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

error

Enjoy this blog? Please spread the word :)