নিজ প্রতিষ্ঠিত মসজিদের সামনে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সাতক্ষীরার কৃতি সন্তান প্রোফেসর ডা. মুজিবুর রহমান

0
19

কালিগঞ্জ প্রতিনিধি : নিজ প্রতিষ্ঠিত মসজিদের সামনে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সাবেক পরিচালক, সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের কৃতি সন্তান প্রোফেসর ডা. এ কে এম মুজিবুর রহমান।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার (১৬ জুন) ভোর ৫ টা ২৫ মিনিটে সকলকে শোক সাগরে ভাসিয়ে তিনি চিরবিদায় নেন। আজ  রাতে নিজ প্রতিষ্ঠিত উপজেলা মথুরেশপুর ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে অবস্থিত বাইতুল আমান জামে মসজিদের সামনে তার দাফন সম্পন্ন হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মরহুমের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ‘মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে তিনি সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হন। সেখানে কিছুদিন চিকিৎসা নেয়ার পর তিনি সুস্থ হয়ে ওঠেন। কয়েকদিন পর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে পুনরায় সিএমএইচ-এ জরুরি বিভাগে আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার ভোরে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ব্যক্তিজীবনে ডা. মুজিবুর রহমান অত্যন্ত সৎ, নিষ্ঠাবান, পরোপকারী, সমাজসেবক ও ধর্মপ্রাণ মানুষ ছিলেন। তিনি নিজ এলাকায় ডা. মুজিব-রুবি মডেল হাইস্কুল, দরিদ্র অসহায় বৃদ্ধদের জন্য নিরাপদ আবাসস্থল (বৃদ্ধ নিবাস), দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদ্রাসা, মসজিদ ভিত্তিক শিশুদের কোরআন শিক্ষা কার্যক্রম, ডা. মুজিব-রুবি টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট, বাইতুল আমান জামে মসজিদ, হাফেজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোর্ডিং, সুপেয় পানি প্রকল্প নির্মাণসহ অসংখ্য জনহিতকর কাজ করেছেন। এছাড়াও বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মাদ্রাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে তার ব্যাপক দানের কথা এলাকার মানুষের মুখে মুখে।

এদিকে প্রোফেসর ডা. মুজিবুর রহমানের মৃত্যুতে তার হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান ডা. মুজিব-রুবি মডেল হাইস্কুলের শিক্ষক, কর্মচারী, শিক্ষার্থী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ব্যক্তিবর্গসহ এলাকাবাসী এবং সংগঠনের পক্ষ থেকে গভীর শোক জ্ঞাপন করা হয়েছে। তারা মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে